ফ্রান্সে শনাক্ত রোগী ছাড়াল ১০ লাখ – bdnews24.com

8
ফ্রান্সে শনাক্ত রোগী ছাড়াল ১০ লাখ -
bdnews24.com

শুক্রবার দেশটির কর্তৃপক্ষ ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড ৪২ হাজার ৩২ জনের দেহে প্রাণঘাতী ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়ার কথা জানিয়েছে।

এ নিয়ে মহামারী শুরুর পর থেকে দেশটিতে মোট ১০ লাখ ৪১ হাজার ৭৫ জনের কোভিড-১৯ শনাক্ত হল।

বিশ্বের সপ্তম দেশ হিসেবে ফ্রান্স এ উদ্বেগজনক মাইলফলক অতিক্রম করেছে বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

৮৪ লাখের বেশি শনাক্ত রোগী নিয়ে এ তালিকায় সবার উপরে আছে যুক্তরাষ্ট্র। ভারতের শনাক্ত রোগীও ছাড়িয়েছে ৭৮ লাখ।

করোনাভাইরাসে মৃত্যু সংখ্যায় বিশ্বের দেশগুলোর মধ্যে এখনও দ্বিতীয় স্থানে থাকা ব্রাজিলে মোট কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়েছে ৫৩ লাখের বেশি।

১৫ লাখের বেশি রোগী নিয়ে চতুর্থ স্থানে আছে রাশিয়া। ১০ লাখের ঘর পেরোনো বাকি দুই দেশ হচ্ছে আর্জেন্টিনা ও স্পেন।

শনাক্তকরণ পরীক্ষার আওতা বাড়ানোয় ফ্রান্সে সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে বিপুল সংখ্যক কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হচ্ছে। দেশটিতে মার্চ থেকে মে পর্যন্ত লকডাউনের সময় ৩১ মার্চ একদিনে সর্বোচ্চ ৭ হাজার ৫৭৮ জন রোগী মিলেছিল।

সংক্রমণের ফের ঊর্ধ্বগতির মধ্যে ৯ সেপ্টেম্বরই  ১০ হাজারের বেশি রোগী পায় দেশটি। একমাস পর, ৯ অক্টোবর মেলে ২০ হাজারের বেশি রোগী; বৃহস্পতিবার সংখ্যাটি প্রথমবারের মতো ৪০ হাজার পেরিয়ে যায়।

শুক্রবার ফ্রান্স করোনাভাইরাসে নতুন ২৯৮ জনের মৃত্যুর খবরও দিয়েছে। এ নিয়ে কোভিড-১৯ দেশটির ৩৪ হাজার ৫০৮ জনের প্রাণ কেড়ে নিল।

সংক্রমণ কমাতে ফ্রান্সের সরকার দেশটির দুই তৃতীয়াংশ এলাকায় রাত্রিকালীন কারফিউও জারি করেছে। এরপরও দৈনিক শনাক্তে লাগাম টানা না গেলে বিধিনিষেধ আরও কঠোর করা হবে বলে জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ।

শুক্রবার তিনি বলেছেন, দৈনিক শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৩ থেকে ৫ হাজারের মধ্যে নামিয়ে আনার পর কারফিউ শিথিল করা হবে। সর্বশেষ অগাস্টের শেষদিকে দেশটিতে গড়ে প্রতিদিন এই সীমার মধ্যে রোগী শনাক্ত হয়েছিল।

“অন্তত আগামী গ্রীষ্ম পর্যন্ত এই ভাইরাসকে নিয়েই বেঁচে থাকতে হবে আমাদের,” বলেছেন ম্যাক্রোঁ।



Source by [Original Post]

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here