শুরুতেই রিয়ালের হোঁচট – bdnews24.com

7
শুরুতেই রিয়ালের হোঁচট -
bdnews24.com

লা লিগায় রোববার গোলশূন্য ড্র হয়েছে রিয়াল ও সোসিয়েদাদের ম্যাচ। ২০০২ সালের পর এই প্রথম দল দুটির লড়াইয়ে কোনো গোল হলো না।

জিতলে কোচ হিসেবে লা লিগায় জয়ের সেঞ্চুরি হতো জিদানের। উপলক্ষ রাঙাতে পারেননি রিয়ালের খেলোয়াড়রা। জমাট রক্ষণ ভাঙার সৃষ্টিশীলতা ছিল না তাদের খেলায়। খুব বেশি সুযোগ তৈরি করতে পারেননি তারা। 

গতবার কোপা দেল রের কোয়ার্টার-ফাইনাল থেকে রিয়ালকে বিদায় করে দেওয়া সোসিয়েদাদ শুরু থেকে ছিল রক্ষণাত্মক। নিজেদের অর্ধে এক রকম গুটিয়ে ছিল দলটি।

রদ্রিগো-ভিনিসিউস-মার্টিন ওডেগার্ডরা ভাঙতে পারেননি জমাট রক্ষণ। গতি আর পায়ের কারিকুরিতে বাঁ দিকে ভীতি ছড়ান ভিনিসিউস, কিন্তু ফাইনাল পাস দিতে পারেননি তিনিও।

পঞ্চদশ মিনিটে ডি-বক্সের বাইরে থেকে গোলরক্ষক বরাবর শট নিয়ে সুযোগ নষ্ট করেন করিম বেনজেমা। প্রথমার্ধে ছয় কর্নারের একটি থেকে গোলের আশা জাগিয়েছিল রিয়াল। ৩৪তম মিনিটে সের্হিও রামোসের বুলেট গতির ভলি সোসিয়েদাদের একজনের গায়ে লেগে বাইরে চলে যায়।

খেলার ধারার বিপরীতে ৪২তম মিনিটে প্রতি-আক্রমণে প্রায় এগিয়েই যাচ্ছিল সোসিয়েদাদ। খুব কাছ থেকে আলেকজান্ডার ইশাকের শট এগিয়ে এসে পা বাড়িয়ে ব্যর্থ করে দেন থিবো কোর্তোয়া। এটাই ছিল প্রথমার্ধের সেরা সুযোগ।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে প্রথম সুযোগটা পায় সোসিয়েদাদ। ৪৭তম মিনিটে পোর্তোর চিপ পাসে আন্দের বাররেনেটিয়ার ভলি একটুর জন্য লক্ষ্যে থাকেনি। 

এরপর অবশ্য আবার খোলসে ঢুকে যায় সোসিয়েদাদ। একের পর এক আক্রমণ করা রিয়াল ভুগছিল রক্ষণ ভাঙতে। ৬২তম মিনিটে ডি-বক্সের বাইরে থেকে আচমকা শটে চেষ্টা করেন বেনজেমা, কিন্তু গোলরক্ষককে ফাঁকি দিতে পারেননি তিনি।

৭৮তম মিনিটে প্রতি আক্রমণ থেকে দারুণ একটা সুযোগ আসে রিয়ালের সামনে। নিজেদের অর্ধ থেকে টনি ক্রুসের উঁচু করে বাড়ানো বল ধরে এগিয়ে যান বেনজেমা। নিজে শট না নিয়ে বাড়ান সুবিধাজনক জায়গায় থাকা মার্ভিন পার্ককে, অভিষিক্ত এই তরুণ তালগোল পাকিয়ে হতাশ করেন দলকে।

এরপর তেমন সুযোগ তৈরি করতে পারেনি কোনো দলই। টানা দ্বিতীয় ড্র নিয়ে মাঠ ছাড়ে সোসিয়েদাদ। 

আসরের দ্বিতীয় সপ্তাহে মাঠে নামলো রিয়াল। পরের সপ্তাহে নামবে বার্সেলোনা, আতলেতিকো মাদ্রিদ ও সেভিয়াও।



Source by [Original Post]

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here